কোক স্টুডিওর গানে প্রশংসিত এ আর রাহমান কন্যা

সঙ্গীতপ্রেমীদের কাছে প্রিয় একটি নাম “কোক স্টুডিও”। ভারত ও পাকিস্তানের বিখ্যাত শিল্পীদের নিয়ে গানের এই সরাসরি অনুষ্ঠান বাংলাদেশের সঙ্গীতপ্রেমীদের কাছেও তুমুল জনপ্রিয়। এরই ধারাবাহিকতায় দেশের সঙ্গীতপ্রেমীদের জন্য গত বছর যাত্রা শুরু করে “কোক স্টুডিও বাংলা”।

পাকিস্তান, ভারত ও বাংলাদেশে দারুণ জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চলের সংগীতকে বৈশ্বিক রূপে ছড়িয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে ভারতে “কোক স্টুডিও তামিল” নামে আরেকটি শাখা চালু করা হয়। সেখানে অস্কারজয়ী বিশ্বখ্যাত সংগীতশিল্পী এ আর রহমানের বড় মেয়ে খাতিজা রহমান দারুণ বাজিমাত করেছেন।

“কোক স্টুডিও তামিল”র প্রথম চমক হিসেবে “সাগাভাসি” শিরোনামের একটি গান প্রকাশিত হয়েছে। গানটিতে মানুষ ও প্রকৃতির মধ্যকার বন্ধনের বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। এ আর রাহমানের মেয়ে খাতিজা রহমানের সঙ্গে গানটি গেয়েছেন তামিল র‍্যাপার আরিভু।

প্রকাশিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই সাড়া ফেলে দেওয়া গানটির ভিউ এক কোটি ৩০ লাখ ছাড়িয়েছে। তামিল ছাড়িয়ে ভারতের অন্যান্য অঞ্চলেও সাড়া ফেলে গানটি প্রশংসিত হচ্ছে। এক প্রতিবেদনে এ কথা জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি এবং ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

“সাগাভাসি” গান প্রসঙ্গে খাতিজা রহমান বলেন, গানের বিষয়বস্তু ও পুরো টিমের সঙ্গে আমি দারুণভাবে যুক্ত। কারণ আমি প্রকৃতি, ফুল, পাখি খুব পছন্দ করি। আমার মনে হয়, এরকম কনসেপ্ট আসলেই অসাধারণ।

বাবা এ আর রহমান গানটি দেখেছেন নাকি জানতে চাইলে তিনি বলেন, হ্যাঁ, বাবা দেখেছেন এবং আমাকে নিয়ে খুব খুশি। আমাকে গান চালিয়ে যেতে বলেছেন। আমি আনন্দিত যে, তিনি গানটি পছন্দ করেছেন।

কৃতি শ্যানন অভিনীত ২০২১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মিমি চলচ্চিত্রে বাবা এ আর রহমানের সুরে রক এ বাই বেবি নামে একটি গানে কণ্ঠ দিয়েছিলেন খাতিজা রহমান। বাবার সাহায্যে গানের দুনিয়ায় পথচলা সহজ হলেও নিজেকে প্রমাণ করার ক্ষেত্রে একান্ত নিজের চেষ্টাই প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

ভবিষ্যতে গানের ভুবনে পা রাখতে ইচ্ছুক তরুণদের উদ্দেশে পরামর্শ দিয়ে খাতিজা রহমান বলেন, চেষ্টা করে যাও। নিজের কাজে মনোযোগী হও আর নিজেকে তুলে ধরো। কারণ আপনি যদি নিজের কাজের প্রচার না করেন, তাহলে তা হারিয়ে যাবে।

159 thoughts on “কোক স্টুডিওর গানে প্রশংসিত এ আর রাহমান কন্যা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *