মনেই হচ্ছে না ভিনদেশে ছবির প্রচারে এসেছি: ফারিণ

0

তাসনিয়া ফারিণের যাঁরা খোঁজখবর রাখেন, কলকাতার রাস্তায় হাঁটলে তাঁরা থমকে যেতেও পারেন। কারণ, সেখানকার রাস্তার পাশের ভবনের দেয়ালে সিনেমার পোস্টারে তাঁর ছবি শোভা পাচ্ছে। ‘আরও এক পৃথিবী’ নামে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বাংলা সিনেমায় অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের ছোট পর্দার এই অভিনেত্রী।

দেশের বাইরে এটি তাঁর প্রথম কাজ। আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি মাল্টিপ্লেক্সসহ পশ্চিমবঙ্গের ৪০টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে এই ছবি।

‘আরও এক পৃথিবী’ মুক্তি উপলক্ষে ১৯ জানুয়ারি কলকাতায় গিয়েছেন ফারিণ। প্রচারণার অংশ হিসেবে কলকাতার গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিচ্ছেন তিনি। দর্শকদের আগ্রহী করতে সেখানকার স্কুল-কলেজেও হাজির হচ্ছেন এই অভিনেত্রী।
কলকাতায় বিভিন্ন সড়কের পাশে ভবনের দেয়ালে নিজের অভিনীত ছবির পোস্টার দেখে রোমাঞ্চিত ফারিণ।

মনেই হচ্ছে না ভিনদেশে ছবির প্রচারে এসেছি: ফারিণ

বললেন, ‘আমার অভিনীত সিনেমার পোস্টার কলকাতার পথেঘাটে, রাস্তার পাশের ভবনের দেয়ালে দেয়ালে, কী যে ভালো লাগছে দেখে। এটি আমার প্রথম সিনেমা। মুক্তির আগে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান যেভাবে গুরুত্ব দিয়ে আমাকে প্রচারণায় রেখেছে, সত্যি আমি মুগ্ধ।’

প্রথম সিনেমা, প্রচারে গিয়ে কেমন সাড়া পাচ্ছেন, জানতে চাইলে ফারিণ জানান, ওটিটিতে ‘লেডিস অ্যান্ড জেন্টেলম্যান’, ‘কারাগার’ সিরিজ ও ওয়েব ফিল্ম ‘নিঃশ্বাস’ প্রচারের পর থেকেই কলকাতার দর্শক চিনেছেন তাঁকে। ছবির প্রচারে গিয়ে সেটি টেরও পাচ্ছেন তিনি।

ফারিণ বললেন, ‘প্রচারণায় যখন যাচ্ছি, সবাই আমার অভিনীত “লেডিস অ্যান্ড জেন্টেলম্যান”, “কারাগার” এবং ওয়েব ফিল্ম “নিঃশ্বাস” নিয়ে কথা বলছেন। অভিনয়ের প্রশংসাও করছেন। সিনেমা মুক্তির আগে এটি আমার জন্য বাড়তি পাওনা। সবাই এতটা আন্তরিক, মনেই হচ্ছে না ভিনদেশে ছবির প্রচারে এসেছি।’

আমি সব সময়ই ব্লকবাস্টার: শুভশ্রী


সিনেমা নিয়ে নিজের প্রত্যাশা কেমন, এমন প্রশ্নে ফারিণ বলেন, ‘প্রথম ছবি, তা-ও আবার দেশের বাইরে। প্রচারে সাড়া পেয়ে প্রত্যাশা বেড়ে গেছে। আমি খুশি। আশা করছি ছবিটি দেখতে দর্শকেরা হলমুখী হবেন। ছবির গল্প যেমন ভালো, লোকেশনেরও বৈচিত্র্য আছে। পুরো ছবি যুক্তরাজ্যে শুটিং হয়েছে। তা ছাড়া ছবিতে সব বাঘা বাঘা শিল্পী অভিনয় করেছেন। সবকিছু মিলিয়ে ছবিটি নিয়ে ভালোই প্রত্যাশা আমার। আমার কাছে মনে হয়েছে, এর চাইতে ভালো ছবি দিয়ে সিনেমায় আমার অভিষেক হতো না।’

বুবলীর ছবিতে সাড়া দিলেন ৪৪ হাজার মানুষ


ফারিণ জানান, ছবিটি মুক্তি পর্যন্ত কলকাতায় থাকবেন তিনি। মুক্তির দিনে প্রেক্ষাগৃহে যাবেন। নন্দন অথবা আইনক্সের যেকোনো শাখায় পুরো ছবিটি দর্শকদের সঙ্গে বসে দেখবেন। অতনু ঘোষ পরিচালিত ছবিটি গত বছরের মাঝামাঝি যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহরে শুটিং হয়। ফারিণ ছাড়াও এই ছবিতে অভিনয় করেছেন কলকাতার কৌশিক গাঙ্গুলি, অনিন্দিতা বসু, সাহেব চ্যাটার্জি প্রমুখ। ছবির চিত্রনাট্যও পরিচালকের।

সালমান শাহ’র কথা বলতে গিয়ে অঝোরে কাঁদলেন ডন (ভিডিও)


‘আরও এক পৃথিবী’ প্রযোজনা করেছে কলকাতার এসকে মুভিজ। এদিকে একই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান থেকে আরও কয়েকটি ছবিতে ফারিণের অভিনয়ের কথা শোনা যাচ্ছে। আগামী ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে তা চূড়ান্ত হবে। বিষয়টি নিশ্চিত না করলেও ফারিণ বলেছেন, ‘আগে “আরও এক পৃথিবী” মুক্তি পাক। দেখি, দর্শকেরা আমাকে কীভাবে গ্রহণ করেন, তারপর বলা যাবে। তবে ভালো ছবিতে কাজ করতে চাই আমি।’

Leave A Reply

Your email address will not be published.